২৫মে হিমসাগর এবং৩১ মে ল্যাংড়া আম বাজারজাত শুরু করার সিদ্ধান্ত

245

মেহেরপুরে হিমসাগর জাতের আম ২৫ মে থেকে এবং ল্যাংড়া জাতের আম বাজারজাত শুরু হবে ৩১ মে থেকে। রবিবার বিকালে মেহেরপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসন,কৃষি অধিদপ্তর ও আম চাষীদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভা থেকে ওই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। একই সাথে আমে ক্ষতিকর কার্বাইড ও ফরমালিন না মেশানের জন্য আম চাষী ও ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানান জেলা প্রশাসক। আম চাষী ও ব্যবসায়ীরা মেহেরপুরের আমে ক্ষতিকর কেমিক্যাল মেশানো হয়না বলে জানান। জেলা প্রশাসক আতাউল গনির সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব গোলাম রসুল, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ড.আখতারুজ্জামান, আম চাষী আলাউদ্দিন, শাহিনুর রহমান প্রমুখ । জেলা প্রশাসক আতাউল গনি বলেন, আম উৎপাদনে প্রচারণার দিক দিয়ে রাজশাহী ও সাতক্ষীরা অনেক এগিয়ে আছে। কিন্তু মেহেরপুর আম উৎপাদনে অনেক এগিয়ে আছে। এখানে আমের পুষ্টিমান ও স্বাদ অনেক ভাল। তাই আমাদের সকলে মিলে মেহেরপুরের আম নিয়ে ব্যাপক প্রচারণা চালাতে হবে।
তিনি আরো বলেন, আম বাজারজাত করণের যে সময়সীমা নির্ধারণ করা হলো তার দুএকদিন আগে পরে আম পুষ্ট হলে বাজারজাত করতে সমস্যা নাই। তবে জন স্বাস্থ্যে ক্ষতি হয় এমন কেমিক্যাল মিশ্রণ করা যাবে না, এমনটি হলে যে করবেন তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরে উপপরিচালক ড. আখতারুজ্জামান বলেন, মেহেরপুর আমে কোন ধরণের কার্বাইড বা ফরমালিন মিশ্রন করা হয় না। তবে আম পাকানোর জন্য যে কেমিক্যাল স্প্রে করা হয় তাতে ক্ষতির সম্ভাবনা নাই। মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ইবাদত হোসেন,সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদুল আলমসহ গণমাধ্যমকর্মী, আমচাষী ও ব্যবসায়ীরা অংশ গ্রহণ করেন।