১ সপ্তাহের লকডাউনে চাঁপাইবনাবগঞ্জ
সোমবার বেলা সাড়ে ১২টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসক কার্যালয় থেকে এ ঘোষণা দেয়া হয়।
৪১

চাঁপাইনবাবগঞ্জে মহামারি করোনা ভাইরাস দিন দিন ভয়াবহ রূপ নেয়ায় সোমবার (২৪ মে) রাত ১২টা থেকে শুরু করে ৩১মে মধ্যরাত পর্যন্ত এক সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার বেলা সাড়ে ১২টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসক কার্যালয় থেকে এ ঘোষণা দেয়া হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মঞ্জুরুল হাফিজ, সিভিল সার্জন ডা. জাহিদ নজরুল চৌধুরী, পুলিশ সুপার এএইচএম আব্দুর রকিব সহ অন্যান্য কর্মকর্তারা।

এসময় জেলা প্রশাসক মঞ্জুরুল হাফিজ সাংবাদিকদের জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জে সাম্প্রতিক করোনা সংক্রমণের উর্দ্ধমুখি প্রবণতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। তাছাড়া সোনামসজিদ স্থলবন্দর দিয়ে ভারতে আটকে পরা বাংলাদেশীরা প্রবেশ করছেন। তাদের মাধ্যমে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়ার শঙ্কা ও করোনা পরিস্থিতির চরম অবনতি হওয়ায় মন্ত্রীপরিষদ বিভাগের নির্দেশক্রমে এ জেলায় ৭ দিনের লকডাউন ঘোষণা করা হলো।

লকডাউনের এ সাতদিন অপ্রয়োজনে কেউ বাসার বাইরে যেতে পারবে না। জেলায় সকল প্রকার যানবহন বন্ধ থাকবে তবে রোগী পরিবহণ বা এ্যাম্বুলেন্স, জরুরী পণ্যবাহী ট্রাক ও সেবাদানের জন্য যানবহন চলবে। এসময় রাজশাহী/নওগাঁ থেকে কোনও যানবাহন চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রবেশ কিংবা বেরুতে পারবে না। কাঁচাবাজার, মুদিখানা, ফার্মেসী ছাড়া সব ধরনের দোকানপাট ও সাপ্তাহিক হাট বন্ধ থাকবে।

নির্দিষ্ট একটি স্থানে আমের আড়ৎ বা বাজার বসতে পারবে না, ইউনিয়ন পর্যায়ে আড়তদারদের মাধ্যমে আম বিক্রি করতে হবে। তবে আম বাগান থেকে ট্রাকে করে কিংবা কুরিয়ারে আম পাঠানো যাবে।

এছাড়া শপিংমল বন্ধ থাকবে। খাবারের দোকানে প্যাকেট খাবার বিক্রি করা যাবে, বসে খাওয়া যাবে না। স্বাস্থ্যবিধি মেনে জুমা সহ প্রতি ওয়াক্তে সর্বোচ্চ ২০জন মুসল্লি অংশগ্রহণ করতে পারবেন। গণমাধ্যম, আইনশৃঙ্খলা সহ জরুরী পরিষেবা এ লগডাউনের আওতার বাইরে থাকবে বলে জানানো হয়।

উল্লেখ্য, গত কয়েকদিনে চাঁপাইনবাবগঞ্জে করোনাক্রান্তের গড় হার ৬০ ভাগ থেকে ৭৮ ভাগের মধ্যে ওঠানামা করছে। দেশের অন্য জেলাগুলোর তুলনায় এই হার এখন সর্বোচ্চ। ঈদের দুদিন পর থেকেই সংক্রমণের হার এক লাফে বেড়ে গেছে। তুলনামূলক চাঁপাইনবাবগঞ্জে রোগী এত বেশি হওয়ার কারণে সোমবার থেকে এক সপ্তাহের লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More