শীর্ষ ১০ সংবাদভিত্তিক ইউটিউব চ্যানেলের তালিকায় যমুনা টেলিভিশন
আবারও বিশ্বের শীর্ষ ১০ সংবাদভিত্তিক ইউটিউব চ্যানেলের তালিকায় স্খান করে নিল যমুনা টেলিভিশন। ‘সোশ্যাল ব্লেড’-এর র‍্যাঙ্কিং।
১২৮

আবারও বিশ্বের শীর্ষ ১০ সংবাদভিত্তিক ইউটিউব চ্যানেলের তালিকায় যমুনা টেলিভিশন গোটা বিশ্বের সংবাদভিত্তিক ইউটিউব চ্যানেলের তালিকায় আবারও শীর্ষ দশ-এ উঠে এলো যমুনা টেলিভিশন। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সোশ্যাল মিডিয়া বিশ্লেষক সাইট ‘সোশ্যাল ব্লেড’-এর র্যাঙ্কিংয়ে ছয় নম্বরে এখন দেশের জনপ্রিয় যমুনা টিভির ইউটিউব চ্যানেল। এমন গর্বের অর্জনকে সাথে নিয়ে সামাজিক মাধ্যমেও মানুষের আস্থা অর্জন এগিয়ে যেতে চায় যমুনা টেলিভিশন। বিশ্বাস, ভালোবাসা ও আস্থা নিয়েই এগিয়ে যাচ্ছে যমুনা টেলিভিশন। এই বিচরণ শুধু টেলিভশনের পর্দায় নয়, বিস্তৃত হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যেখানে চোখের সামনে থাকে কতজন দেখছেন কিংবা কতজন দর্শক চ্যানেলের সাথে যুক্ত আছেন। সেখানে মাত্র সাড়ে তিন বছরে ৭৩ লাখ সাবস্ক্রাইবারে এখন যমুনা পরিবার। শুধু সাবস্ক্রাইবার নয়, আপলোড হওয়া ৫০ হাজার ভিডিওর ভিউ ছাড়িয়েছে প্রায় ৩শ’ ৮৬ কোটি! এই জনপ্রিয়তা আর ভালোবাসার প্রতিফলন যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সোশ্যাল মিডিয়া বিশ্লেষণ সাইট ‘সোশ্যাল ব্লেড’ এ। এর র্যাআঙ্কিং-এ আরও একবার শীর্ষ ১০ এ যমুনা টেলিভিশন। এক নম্বরে যেখানে ভারতের সংবাদভিত্তিক চ্যানেল ‘আজ তাক’ সেখানে যমুনা টিভির অবস্থান ছয়ে।

এ বিষয়ে যমুনা টিভির প্রধান বার্তা সম্পাদক ফাহিম আহমেদ বলেন, সোশ্যাল ব্লেডের তালিকায় সাবস্ক্রাইবারের পাশাপাশি চ্যানেলের কন্টেন্টের ভিউ, ফিডব্যাক ও সামগ্রিক প্রভাব বিবেচনা করা হয়। তাই তো বিশ্বের বুকে ৬ নম্বরে লাল সবুজের একটি চ্যানেলের এই অবস্থান আত্নবিশ্বাসী করছে যমুনা টিভিকে। ‘নিউজ অ্যান্ড পলিটিকস’ ক্যাটাগরিতে গতবার বাংলাদেশ থেকে প্রথমবার শীর্ষ পাঁচে উঠে আসে যমুনা টেলিভিশন। এবার সেই তালিকায় যমুনা টেলিভিশনের অবস্থান ষষ্ঠ। এছাড়া এই তালিকায় ১৫ নম্বর অবস্থানে জি নিউজ, ১৮ নম্বরে এনডিটিভি, আল জাজিরা ৫৪ ও বিবিসি’র অবস্থান ৬৯ এ।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More