না ফেরার দেশে ইমরুল কায়েসের বাবা
বনি আমিন বিশ্বাস এর জানাযা ও দাফন কাজে গণ-জামায়েত না করার আহ্বান জেলা প্রশাসকের
৮০

প্রায় এক মাস মৃত্যুর সাথে লড়াই করে না ফেরার দেশে চলে গেলেন জাতীয় দলের ক্রিকেটার ইমরুল কায়েসের পিতা বানি আমিন বিশ্বাস। রবিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ঢাকা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেছেন। মৃত্যুর কালে তার বয়স হয়েছিল ৬০ বছর।
গত ২৩ মার্চ সকালে বানি আমিন বিশ্বাস মেহেরপুর সদর উপজেলার উজ্জলপুর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে মেহেরপুর আসার পথে মেহেরপুর-কাথুলী সড়কের ছহিউদ্দিন ডিগ্রী কলেজের পাশে এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় মারাত্মক আহত হন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে ২’শ ৫০ শয্যা বিশিষ্ট মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে ওই দিনই ১ টা ৪০ মিনিটে উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টার যোগে বনি আমিন বিশ্বাসকে ঢাকায় নেওয়া হয়।
এদিকে বনি আমিন বিশ্বাসের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে মেহেরপুর জেলায় শোকের ছায়া নেমে আসে। কুতুবপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও উজুলপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইদ্রিস আলী জানান, মরহুমের জানাজায় লোকসমাগম না করার জন্য আমরা সকলের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছি। তিনি বলেন, লাশ আসার পর শুধুমাত্র তাকে একনজর দেখার সুযোগ দেওয়া হবে। করোনা ভাইরাসের কারণে বড় আকারে জানাজা করা থেকে বিরত রাখা হবে বলেও তিনি জানান। এদিকে জাতীয় ক্রিকেট দলের সদস্য ইমরুল কায়েসের পিতা বনি আমিন বিশ্বাসের মৃত্যুতে তার জানাযা ও দাফন কাজে অংশগ্রহণের জন্য তার পরিবারের সদস্য ছাড়া অন্য কাউকে উপস্থিত না থাকার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক আতাউল গনি। তিনি বলেন, জেলায় জনস্বাস্থ্য বিবেচনায় সকল ধরনের জমায়েত নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বনি আমিন বিশ্বাস এর জানাযা ও দাফন কাজে কেবল তার পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত থাকবেন। গ্রামেই জানাজা শেষে তার দাফন হবে।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More